প্রসাবে জ্বালাপোড়া ঘরোয়া চিকিৎসা

প্রসাবে জ্বালাপোড়া ঘরোয়া চিকিৎসা, কারণ ও লক্ষণ

প্রসাবে জ্বালাপোড়া নারী পুরুষের একটি বহুল প্রচলিত সমস্যা। বিশেষ করে এই সমস্যায় নারীরা পুরুষের তুলনায় বেশি ভুগে থাকেন। প্রসাবে জ্বালাপোড়া ২৫-৪০ বছর বয়সের ক্ষেত্রে বেশি দেখা দিয়ে থাকে। তো যাইহোক, আজকের লেখাতে আমরা জানবো প্রসাবে জ্বালাপোড়া কেন হয়, তার লক্ষণ ও প্রসাবে জ্বালাপোড়া ঘরোয়া চিকিৎসা। তাহলে দেরী না করে চলুন দেখে নেই প্রসাবে জ্বালাপোড়ার ঘরোয়া চিকিৎসা কি কি।

প্রসাবে জ্বালাপোড়া

প্রসাব শেষে আমরা যে অস্বস্তিকর ও অসহ্যকর ব্যথা কিংবা জ্বলা অনুভব করি সেটাই হল প্রসাবে জ্বালাপোড়া কিংবা মূত্রনালীর সংক্রমণ (Urinary tract infections (UTIs)। এই জ্বালাপোড়াটা মূলত জীবাণুর কারণে ঘটে, যেমন ব্যাকটেরিয়া মূত্রনালীতে শরীরের রোগ প্রতিরোধে বাধা দেয়। তারা কিডনি, মূত্রাশয় এবং তাদের মধ্যবর্তী টিউবগুলিকে আক্রমণ করে। যার ফলে প্রসাব শেষে জ্বালাপোড়ার সৃষ্টি হয়। এই ব্যাকটেরিয়াগুলি এমন জীব যা মাইক্রোস্কোপ ছাড়া দেখা যায় না

ভয় পাওয়ার কোন কারণ নাই, এই উপসর্গগুলি খুবই কমন। শুধু আমেরিকাতে প্রতি বছরে ৮০ লক্ষের মতো রোগী এই রোগে আক্রান্ত হয়ে ডাক্তারের শরণাপন্ন হয়ে থাকেন।

প্রসাবে জ্বালাপোড়া ঘরোয়া চিকিৎসা
প্রসাবে জ্বালাপোড়া ঘরোয়া চিকিৎসা

কারণ

বিভিন্ন ব্যাকটেরিয়া আমাদের ত্বকে, মলদ্বারে এবং যোনির চারপাশে বাস করে। অনেক সময় এইসব ব্যাকটেরিয়া মূত্রনালীতে প্রবেশ করে, এবং তখন তা মূত্রাশয়ে চলে যায় ফলে এই ব্যাকটেরিয়াগুলি প্রসাবে জ্বালাপোড়ার সৃষ্টি করে।

আমাদের শরীর সবসময় খারাপ ব্যাকটেরিয়াগুলি মূত্রনালীতে প্রবেশ করার আগে তা প্রতিরোধ করে থাকে, কিছু কিছু ক্ষেত্রে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আগেই ব্যাকটেরিয়াগুলি মূত্রনালীতে প্রবেশ করে ফেলে। সেসব ক্ষেত্রে প্রসাবে জ্বালাপোড়া হয়ে থাকে। এছাড়াও যেসব কারণে প্রসাবে জ্বালাপোড়া হয় তা হলঃ

  • প্রসাবে জ্বালাপোড়া সাধারণত Escherichia coli (E. coli) ব্যাকটেরিয়া দ্বারা সৃষ্ট হয়ে থাকে, যা গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল (GI) ট্র্যাক্টে পাওয়া এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া।
  • প্রসাবে জ্বালাপোড়া ঘটতে পারে যখন GI ব্যাকটেরিয়া মলদ্বার থেকে মূত্রনালীতে ছড়িয়ে পড়ে। এছাড়াও, যেহেতু মহিলাদের মূত্রনালী যোনিপথের কাছাকাছি থাকে, তাই যৌনবাহিত সংক্রমণ, যেমন হারপিস, গনোরিয়া, ক্ল্যামাইডিয়া এবং মাইকোপ্লাজমা, মূত্রনালী হতে পারে।
  • বেশিরভাগ ইউটিআই ব্যাকটেরিয়া দ্বারা সৃষ্ট হয়, তবে কিছু ক্ষেত্রে ছত্রাক এবং খুব কম ক্ষেত্রে ভাইরাস দ্বারা সৃষ্ট হয়।


প্রসাবে জ্বালাপোড়া ঘরোয়া চিকিৎসা, কারণ ও লক্ষণ

লক্ষণ

প্রসাবে জ্বালাপোড়ায় যেসব লক্ষণ সাধারণত লক্ষ করা যায় বা যেসব লক্ষণ দেখলে বুঝবেন আপনার মূত্রনালীতে ইনফেকশন হয়েছে তা হলঃ

  • প্রসাব করার সময় মূত্রনালীতে জ্বালাপোড়া করা।
  • ঘন ঘন প্রসাবে ধরা, তবে প্রতিবার খুব কম প্রসাব করা।
  • প্রসাবের মধ্যে রক্ত যাওয়া।
  • প্রসাবের রঙ ধূসর হওয়া বা ময়লা রঙের প্রসাব হওয়া।
  • চায়ের মতো রঙের প্রসাব হওয়া।
  • প্রসাবে খুব বাজে গন্ধ করা।
  • মলদ্বারে ও মূত্রনালীতে ব্যথা করা।

উপরের লক্ষণগুলি আপনার মধ্যে থাকলে প্রথমেই আপনার উচিত ভালো ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া এবং প্রয়োজনে মেডিকেল চেকাপ কিংবা মেডিকেল টেস্ট করানো।

প্রসাবে জ্বালাপোড়া ঘরোয়া চিকিৎসা

এতোক্ষণ আমরা জানলাম প্রসাবে জ্বালাপোড়ার কারণ, লক্ষণ ও প্রসাবে জ্বালাপোড়া কেন হয়। এবার আসুন জেনে নেই প্রসাবে জ্বালাপোড়া ঘরোয়া চিকিৎসা। আপনি যদি এই উপসর্গে বহুদিন ধরে ভুগে থাকেন তাহলে আপনে দেরী না করে ডাক্তারের কাছে যাওয়া উচিত। আর যদি আপনি প্রথম এই উপসর্গের মুখোমুখি হয়ে থাকেন তাহলে ঘরোয়াভাবে নিচের পদ্ধতিগুলি চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

  • প্রতিদিন কমপক্ষে ৬-৮ গ্লাস পানি পান করবেন।
  • বেশিক্ষণ প্রসাব ধরে রাখবেন না। প্রসাবে ধরার সাথে সাথে প্রসাব করে ফেলবেন।
  • মিলনের শেষে সাথে সাথে প্রসাব করবেন।
  • সবসময়  মূত্রনালী পরিষ্কার রাখার চেষ্টা করবেন। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ছত্রাকরা খুব বেশি আক্রমণ করে থাকে।
  • আপনি যদি গর্ভবতী হয়ে থাকেন তাহলে কোন কিছু অনুসরণ না করে ডাক্তারের পরামর্শ নিবেন।
  • ক্র্যানবেরি ফলের জুস খেতে পারেন, এই ফল কিডিনি ভালো রাখতে সাহায্য করে।
  • পায়খান ও প্রসাব শেষে ভালোভাবে মলদ্বার ও মূত্রনালী পরিষ্কার করতে হবে।
  • যৌনাঙ্গে যেকোন ধরনের স্প্রে, পাউডার বা ক্যামিকেল এড়িয়ে চলুন, এগুলো খারপ ব্যাকটেরিয়া কিংবা ছত্রাক জন্ম দিয়ে থাকে।
  • ইমার্জেন্সি পিল কিংবা কনডম উভয়ই ব্যাকটেরিয়া জন্মদিতে পারে। তাই ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে জন্ম নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনুন।

এই ছিলো আজকের লেখা প্রসাবে জ্বালাপোড়া ঘরোয়া চিকিৎসা, কারণ ও লক্ষণ। লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করতে ভুলববেন না।

তথ্যসুত্রঃ

  • https://www.mayoclinic.org/diseases-conditions/urinary-tract-infection/diagnosis-treatment/drc-20353453
  • https://www.healthline.com/health/urinary-tract-infection-adults#prevention
  • https://www.mayoclinic.org/diseases-conditions/urinary-tract-infection/symptoms-causes/syc-20353447
  • https://www.medicalnewstoday.com/articles/189953#treatment
  • https://www.urologyhealth.org/urology-a-z/u/urinary-tract-infections-in-adults

বিঃদ্রঃ  এই ব্লগের প্রত্যেকটা ব্লগ পোস্ট Sylhetism ব্লগের নিজস্ব ডিজিটাল সম্পদ। কেউ ব্লগের কোন পোস্ট কিংবা আংশিক অংশ ব্লগের কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া কপি পেস্ট করে অন্য কোথাও প্রকাশ করলে ব্লগ কর্তৃপক্ষ ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে মামলা করার অধিকার রাখে। এবং অবশ্যই কপিরাইট ক্লাইম করে যে মাধ্যমে এই ব্লগের পোস্ট প্রকাশ করা হবে সেখানেও কমপ্লেইন করা হবে।

এই ব্লগের কোন লেখায় তথ্যগত কোন ভুল থাকলে আমাদের Contact পেইজে সরাসরি যোগাযোগ করুন, আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তথ্য যাচাই করে লেখা আপডেট করে দিবো।

এই ব্লগের কোন স্বাস্থ বিষয়ক পোস্টের পরামর্শ নিজের বাস্তব জীবনে প্রয়োগ করার আগে অবশ্যই বিশেষজ্ঞদের মতামত নিবেন, আমরা স্বাস্থ বিষয়ে কোন বিশেষজ্ঞ না, আমাদের উদ্দেশ্য ও লক্ষ হচ্ছে সঠিক তথ্য পরিবেশন করা। সুতারাং কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার দায়ভার অবশ্যই আমরা নিবো না।

ধন্যবাদ, ব্লগ কর্তৃপক্ষ।

You cannot copy content of this page